Sun. Dec 5th, 2021

সিলেট টেলিগ্রাফ

সত্য প্রকাশে অবিচল

জগন্নাথপুরে রানীগঞ্জ ব্রীজ টি উদ্বোধনের আগেই ব্রীজে সেলফি তুলতে ব্রিজে দর্শনার্থীদের ভিড়

1 min read

 877 total views,  2 views today

গোবিন্দ দেব জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি::

সুনামগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়কে কুশিয়ারা নদীর উপর নির্মাণাধীন রানীগঞ্জ ব্রিজের কাজ শেষ হওয়ার পূর্বে সেলফি ব্রিজে রুপ নিতে যাচ্ছে। বিশেষ করে ঈদের সময় আসলে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে দর্শনার্থীরা ঝড়ো হতে থাকেন আর সেলফী আর সেলফী তুলতে ব্যস্ত সবাই। আজ বিকালে

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পবিত্র ঈদুল ফিতরের দ্বিতীয় দিনে দুপুর থেকে বিভিন্ন স্থান থেকে সপরিবারে বা বন্ধু বান্ধবদের নিয়ে ঘুরে যান ব্রিজে। দৃষ্টি নন্দন স্থান পেয়ে সকলেই সেলফী তুলতে ব্যস্ত। দল বেধে আসা জনসাধারন প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখে স্মৃতি ধরে রাখতে চান তারা। সরকার যদিও করোনা মহামারী কারণে বিভিন্ন পর্যটন এলাকার দর্শনার্থী স্থান গুলো বন্ধ থাকার কারণে। দর্শনার্থীরা জগন্নাথপুরের পাইলগাঁও জমিদারবাড়ি ও রানীগঞ্জের কুশিয়ারা নদীর উপর ব্রীজটি বেছে নেন।।
অনেকেই বিভিন্ন জায়গা দেখার স্থানে মধ্যে দশনার্থীদের বিশেষ স্থান হিসেবে রানীগঞ্জ ব্রিজটি রেখে দিয়েছেন। ব্রিজের সৌন্দর্য্য ও খোলামেলা পরিবেশ দর্শনার্থীদের ভিন্ন স্বাদ দেয়। এতে করে বিকাল হলেই খোলা পরিবেশে শ্বাস নিতে দশানার্থীরা ছুটেন রানীগঞ্জ ব্রিজে। বাইরে থেকে আসা পর্যটকরাও এলাকার জনসাধার দেখাদেখি সেলফি ব্রিজ দর্শনে ছুটে যান।
কুশিয়ারা নদীর পাড়ে গিয়ে সৌন্দর্য উপলব্ধি করার সুযোগ হয়তো সবার কপালে জোটে না। তাই ঈদ এলেই বিনোদনপ্রেমী ও দর্শনার্থীদের মিলনমেলায় পরিণত হয় এই ব্রিজটি। ঢাকা-সুনামগঞ্জ মহাসড়কে নির্মিত দৃষ্টিনন্দন এ সেুতটি সুনামগঞ্জের মানুষের প্রধান বিনোদন কেন্দ্র পরিণত হয়েছে। ঈদের দিন থেকে দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে সেতুটির দুইপাশ। নগরজীবনের কোলাহল ছেড়ে মুক্ত পরিবেশে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে দূর-দূরান্ত থেকে অনেকেই ছুটে আসেন সেতু এলাকায়। নানা বয়সী দর্শনার্থী হেসেখেলে আর তরুণ-তরুণীদের সেলফিতে এক উৎসবের আমেজ বিরাজ করে এলাকাটিতে।
ব্রিজে ঘুরতে আসা জগন্নাথপুরের জনসাধারন জানান, গাড়ি নিয়ে সপরিবারে ব্রিজে না এলে ঈদের বেড়ানো অপূর্ণাঙ্গ থেকে যায়। তা ছাড়া এখানে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার মজাই আলাদা। ব্রিজে বেড়াতে আসা শিক্ষার্থীরা জানান, জগন্নাথপুরের এলে রানীগঞ্জ ব্রিজে তাকে আসতেই হবে। কারণ এটি তার খুব পছন্দের। পাইলগাঁও বাবুর বাড়ীর পাশে ব্রিজটি থাকায় এই জমিদারে বাড়ি দেখে ব্রিজটি না দেখলে যেন অপূর্ণ থেকে যায়।

Ad
সম্পাদক : যীশু আচার্য্য II স্বপ্নীল ৬৪ মির্জাজাঙ্গাল, সিলেট II ফোন: ০১৭১৯-৭৩৩৫৪৯ | Newsphere by AF themes.
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.