স্থানীয় ডাকাতরা ছাড়াও এসব এলাকায় সিলেটের বাইরে ডাকাত দল গাড়িযোগে এসে ডাকাতি করে বেড়ায়। কখনো কখনো নগরীতেই ডাকাতি করে। ফলে শীত মৌসুমে সিলেটে ডাকাত আতঙ্ক থাকে বেশি। তবে চোর ও ডাকাতদের ধরতে প্রতিনিয়ত কাজ করছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী।

আজ মঙ্গলবার (১৫ডিসেম্বর) ভোররাতে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার উত্তর ধর্মদা এলাকায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে দুই ডাকাত একটি কবরস্থানে প্রবেশ করে। পরে ওই গ্রামের মসজিদের মাইকে মাইকিং করে ডাকাত এসেছে জানিয়ে দিলে এলাকার লোকজন ও পুলিশ চারদিকে বের হলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান,ফজরের নামাজ শেষে বের হবেন ঠিক এই সময় সাদা পোশাকধারী পুলিশ এসে বলেন আমাদের গ্রামের গোরস্থানের ২ ডাকাত প্রবেশ করেছে আমরা তাদের কথা শুনে মাইকিং করে পুরো এলাকায় জানিয়ে দেই।পরে পুলিশ ও গ্রামের মিলে কবরস্থানে জঙ্গল ও আশপাশের এলাকায় প্রায় ২ঘন্টাব্যাপী খোঁজাখুজি করে কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৪ জোড়া জুতা, একটি মোবাইল, অস্ত্রসহ ডাকাতির সামগ্রী উদ্ধার করেছে।

এব্যাপারে ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ দক্ষিণের ওসি আশীষ মৈত্র জানান, আজকের এই অভিযান আমাদের ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। গত কয়েকদিন থেকে তীব্র শীত পড়ছে আমরা জন নিরাপত্তার স্বার্থে টহল এবং নজরদারী চালিয়ে যাচ্ছি। এর ধারবাহিকতায় গতকাল সন্ধ্যা থেকে আমরা অভিযান চালাই। আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আমাদের কাছে আরও তথ্য রয়েছে। সেগুলো যাচাই-বাচাই করে আমরা অভিযান চালিয়ে যাবো।

এই অভিযান থেকে কি কি উদ্ধার করা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,প্রাথমিক ভাবে এগুলো বলা যাচ্ছে না। পরবর্তীতে অফিসিয়াল ভাবে জানানো হবে।