Mon. Jun 14th, 2021

সিলেট টেলিগ্রাফ

সত্য প্রকাশে অবিচল

লাখাইয়ে করোনা আতঙ্কে জমির ফসল তোলা নিয়ে সংশয় 

1 min read

 212 total views,  2 views today

সানি চন্দ্র বিশ্বাস, লাখাই প্রতিনিধিঃ

হাওরাঞ্চলের মানুষের জীবন ও জীবিকার সাথে উৎপ্রোতভাবে জড়িত জমিতে উৎপাদিত ফসল। তাই ফসল তোলার মৌসুম এলেই কৃষকের বাড়িতে বাড়িতে চলে উৎসবের আমেজ। কারন সারা বছরের খাদ্যের জোগান দেয় তাদের যত্নে লালিত সোনালী ফসল । কিন্তু করোনা আতঙ্কে কৃষকের সোনালী ফসল তোলার স্বপ্ন যেন মাঠের ফসলের সাথে মাঠেই মারা যাচ্ছে। এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় থেকে ফসল কাটা, মাড়াই ও শুকানোর কাজ শুরু হয়।

তাই এ সময় কৃষান -কৃষাণীরা ব্যস্ত সময় কাটান নতুন ফসল তোলার কাজে। কিন্তু করোনা আতঙ্কে হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার হাওরাঞ্চল ঘুরে দেখা যায় উল্টো চিত্র। অনেক জমিতে ধান পাকতে শুরু করেছে এবং অনেকগুলো জমির ফসল কাটার সময় হয়ে এসেছে। কিন্তু কৃষকের কপালে চিন্তার ভাঁজ আদৌ ফসল ঘরে তুলতে পারবেন কিনা।

লাখাই ১ নং ইউনিয়নের কৃষক শ্যামল দেবনাথের সাথে কথা বলে জানা যায়, তাদের বেশিরভাগ জমি কাটার জন্য দেশের অন্যান্য প্রান্ত বিশেষ করে রংপুর,কুড়িগ্রাম,জামালপুর অঞ্চলের কৃষকদের উপর নির্ভরশীল।

করোনা আতঙ্কে দেশব্যাপী লকডাউন থাকায় তারা আসতে পারছে না। তাছাড়া নিজেরা বা দেশীয় শ্রমিক দ্বারা এত জমি কাটা ও সম্ভব নয়। এমতাবস্থায় বিগত বছরগুলোর ন্যায় পানিতে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন। তাছাড়া হবিগঞ্জ জেলাসহ সারাদেশ লকডাউনে থাকায় সংঘবদ্ধভাবে ধান কাটতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

এমতাবস্থায় কৃষকের দুঃশ্চিন্তার অন্ত নেই। আলাউদ্দিন নামে অপর এক কৃষক জানান , নিজের প্রায় বিশ ক্ষের (স্হানীয়ভাবে ২৫ শতাংশ = ১ ক্ষের) জমি শ্রমিক না থাকায় নিজেদের কাটতে হবে বা দেশি শ্রমিক দিয়ে কাটাতে হবে। তবে এতে জমি কাটতে অনেক দিন লাগবে । তবে নিজেরাই যারপরনায় চেষ্টা করছি ফসল ঘরে তুলতে না হলে অনাহারে থাকতে হবে।

Ad
সম্পাদক : যীশু আচার্য্য II স্বপ্নীল ৬৪ মির্জাজাঙ্গাল, সিলেট II ফোন: ০১৭১৯-৭৩৩৫৪৯ | Newsphere by AF themes.
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.